মেনু নির্বাচন করুন

শিরোনাম
মাঘ মাসে কৃষকদের করণীয়
বিস্তারিত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা কৃষি অফিসারের কার্যালয়

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর

শ্রীনগর, মুন্সীগঞ্জ।


মাঘ মাসে কৃষকদের করণীয়


মাঘ মাস শীতের দ্বিতীয় মাস। প্রাকৃতিক হিমশীতল আমেজ, খেজুর গুরের পিঠাপুলির ধুম, মাঠ প্রান্তরে কুয়াশা ঢাকা সন্ধা, বিন্দু বিন্দু শিশির জমা সকাল-দুপুর, বিকাল অন্যরকম আমেজ এনে দেয় জীবন পরিক্রমায়। কথায় আছে মাঘের শীতে বাঘ পালায়। কিন্তু আমাদের কৃষক ভাইদের মাঠ ছেড়ে পালানোর কোন সুযোগ নেই। বাংলার মানুষে মুখে অন্ন যোগাতে শীতের ঠান্ডা হাওয়ায় লেপের উষ্ণতাকে ছুড়ে ফেলে আমাদের কৃষক ভাইরা ব্যস্ত হয়ে পড়েন মাঠের কাজে। মাঘ মাসে কৃষক ভাইদের করণীয় বিষয়গুলো সংক্ষেপে উল্লেখ করা হলো।

বোরো ধান:

  • বোরো ধানে জাত অনুসারে চারা রোপণের ১৫-২০ দিন পর ১ম কিস্তি, ৩০-৪০ দিন পর দ্বিতীয় কিস্তি এবং

         ৫০-৫৫ দিন পর শেষ কিস্তি হিসেবে ইউরিয়া সারের উপরি প্রয়োগ করতে হবে।

  • চারা রোপণকালে শৈত্য প্রবাহ শুরু হলে কয়েক দিন দেরী করে চারা রোপণ করতে হবে।
  • চারা রোপণের পর শৈত্য প্রবাহ দেখা দিলে জমিতে ৫-৭ সেন্টিমিটার পানি ধরে রাখতে হবে।

          বোরো ধানে নিয়মিত সেচ প্রদান, আগাছা দমন, বালাই ব্যবস্থাপনাসহ অন্যান্য পরিচর্যা করতে হবে। পদ্ধতিতে সেচ প্রদান করলে পানি সাশ্রয় হয় এবং ফলন বাড়ে।

  • রোগ ও পোকা থেকে ফসলকে রক্ষা করতে সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে পরিচ্ছন্ন চাষাবাদ, আন্ত:পরিচর্যা, যান্ত্রিক দমন, উপকারী পোকা সংরক্ষণ, জমিতে ডালপালা পুঁতে পাখি বসার ব্যবস্থা করা, আলোক ফাঁদ এসবের মাধ্যমে ধানক্ষেত বালাই মুক্ত করতে হবে।

ভূট্টা:

  • ভূট্টা গাছের গোড়ার মাটি তুলে দিতে হবে।
  • ভূট্টা ফসলের জাত অনুসারে বীজ গজানোর ২৫-৩০ দিন পর প্রথম কিস্তি, ৪০-৪৫ দিস পর দ্বিতীয় কিস্তি ইউরিয়া ও এমওপি সারের উপরি প্রয়োগ করতে হবে।
  • ভূট্টার সাথে সাথী ফসল বা মিশ্র ফসলের চাষ করে থাকলে সেগুলোর প্রয়োজনীয় পরিচর্যা করতে হবে।
  • ভূট্টা ফসলে ফল আর্মিওয়ার্ম পোকার আক্রমন দেখা দিতে পারে। কাজেই নিয়মিত মনিটরিং, স্কাউটিং ও প্রয়োজনীয় দমন ব্যবস্থা নিতে হবে।

আলু:

  • আলু ফসলের নাবি ধ্বসা রোগ বা মড়ক রোগ দেখা দিতে পারে, মড়ক রোগ দমনে দেরী না করে ডায়থেন এম-৪৫ অথবা সিকিউর অথবা ইন্ডোফিল স্প্রে অথবা অনুমোদিত ছত্রাকনাশক মাত্রানুযায়ী প্রয়োগ করতে হবে।
  • আলু ফসলে মালচিং,সেচ প্রদান ও আগাছা দমনের কাজগুলো করতে হবে।
  • আলু গাছের বয়স ৯০ দিন হলে হাম পুলিং (মাটি সমান করে গাছ কাটা) করতে হবে এবং ১০ দিন পর আলু তুলতে হবে।
  • আলু তুলার পর ভালো করে শুকিয়ে বাছাই করে সংরক্ষণ করতে হবে।

তেল ফসল:

  • সষিষা বেশি পাকলে রোদের তাপে ফেটে গিয়ে বীজ পড়ে যেতে পারে। তাই এগুলো ৮০ ভাগ পাকলেই সংগ্রহের ব্যবস্থা নিতে হবে। এবং ফল ও পাতায় কালো দাগের জন্য রোভরাল ছত্রাকনাশক ২ গ্রাম ১ লিটার পানিতে ১০ দিন পর পর বিকাল বেলা স্প্রে করতে হবে।


শীতকালিন সবজি:

  • বেশি ফলন পেতে হলে শীতকালীন শাকসবজি যেমন: ফুল কপি,বাধা কপি, টমেটো,বেগুন,শিম,লাউ,মিষ্টি কুমড়া মটরশুটি ইত্যাদির নিয়মিত যতœ নিতে হবে।
  • টমেটো ফসলের মারাতœক পোকা হলো ফলছিদ্রকারী পোকা। সমন্বিত বালাই দমন পদ্ধতিতে এ পোকা দমন করতে হবে।
  • শীতকালে মাটির রস কমে যায় বলে মাঝে, মাঝে সেচ দিতে হবে।
  • গোড়ার মাটি আলগা করে দিতে হবে এবং আগাছা মুক্ত রাখতে হবে।

মসলা জাতীয় ফসল:

  • রোপণকৃত চারা পেঁয়াজের উপরিসার প্রয়োগ, সেচ ও অন্যান্য পরিচর্যা করতে হবে।

আম:

  • সাধারণত এ সময় আম গাছে মুকুল আসে । গাছে মুকুল আসার পর থেকে ফুল ফোটার পূর্ব পর্যন্ত আক্রান্ত গাছে টিল্ট- ২৫০ ইসি প্রতি লিটার পানিতে ০.৫ মিলি অথবা ০২ গ্রাম ডাইথেন এম- ৪৫ প্রতি লিটার পানিতে মিশেয়েয় স্প্রে করতে হবে। আমের আকার মটর দানার মত হলে গাছে ২য় বার স্প্রে করতে হবে।
  • এসময় প্রতিটি মুকলের অসংখ্য হপার পোকার নিম্ফ দেখা যায়। আম গাছে মুকুল আসার ১০ দিনের মধ্যে কিন্তু ফুল ফোটার পূর্বেই ০১ বার এবং এর ০১ মাস পর আরেক বার প্রতি লিটার পানির সাথে ০১ মিলি ক্যারাটে/ রেলোথ্রিন/ কট- ২.৫ ইসি মিশিয়ে গাছের পাতা মুকুল ও ডাল পালা ভালো ভারে ভিজিয়ে স্প্রে করতে হবে।

কৃষি বিষয়ে যে কোন সমস্যায় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে কর্মরত উপসহকারী কৃষি অফিসার অথবা উপজেলা কৃষি অফিসে যোগাযোগ করে পরামর্শ নিতে অনুরোধ করা হলো

ডাউনলোড
প্রকাশের তারিখ
25/01/2022
আর্কাইভ তারিখ
30/04/2024